আটলান্টায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালো বাংলাদেশি যুবক মিজান

0
2221

রুমী কবিরঃ গতকাল রোববার রাত এগারটায় মেট্রো আটলান্টার শ্যাম্বলী শহরস্থ নর্থ শ্যালোফর্ড রোডে এক মারাত্মক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালো ১৯ বছরের বাংলাদেশি যুবক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া (ইন্নালি…রাজেউন) ।

নিহত মিজানের মামা আমিনুল ইসলাম জানান, গত রাতে গাড়ি চালিয়ে বাসায় ফেরার পথে আকস্মিকভাবে অপর পাশ থেকে আসা চলন্ত গাড়ির সাথে তাঁর ভাগ্নে মিজানের গাড়ির ধাক্কা লাগার পর পার্শ্ববর্তী গাছের সাথে পুনরায় ধাক্কা লেগে টয়োটা র‍্যাভ ৪ গাড়িটি দ্বিখণ্ডিত হয়ে যায়  এবং ভাগ্নে মিজান ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায়।

মামা আমিনুল ইসলাম বলেন, “পুলিশের রিপোর্ট থেকে জানতে পেরেছি, ওর গাড়িটি গাছের সাথে ধাক্কা লাগার পর পরই দুই টুকরো হয়ে যায় এবং মিজান সঙ্গে সঙ্গেই মারা যায়”।

পুলিশের তথ্য অনুযায়ী মিজানের গাড়িতে অপর আরোহী ওর বন্ধু জনৈক শ্বেতাঙ্গ যুবককে আশংকাজনক অবস্থায় এম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

মামা আমিনুল আরও জানান, মিজান ভূঁইয়া কয়েকদিন আগে সাব-ওয়ের রেস্টুরেন্টের চাকরিটি হারানোর পর ‘উবার’ গাড়ি চালানোর পেশায় নামার প্রচেষ্টা নিচ্ছিল এবং ঐ রাতে কিছু আনুষঙ্গিক কার্যাদি সেরে নর্থ শ্যালোফোর্ড রোডস্থ বাসায় ফিরছিল। অথচ বাসায় পৌঁছার কয়েক মিনিট আগেই এই দুর্ঘটনার শিকার হয় সে।

নিহত মিজান ভুঁইয়ার এক ভাই ও দুই বোন।     তার সহোদর ছোট ভাই এবং বোন ও ভগ্নিপতি আটলান্টায় একই সাথে বসবাস করেন। বাবা আব্দুল লতিফ সরকার ও মা রেহানা আকতার ১৯৯৫ সালে লটারি ভিসায় অভিবাসী হয়ে আমেরিকায় এসেছিলেন, তবে তাঁরা কয়েক বছর আগে বাংলাদেশে ফিরে যান এবং বর্তমানে ঢাকায় বসবাস করছেন।

পুত্রের মৃত্যু সংবাদে ঢাকায় অবস্থানকারী বাবা মা ছেলের মরদেহ স্বদেশে প্রেরণ করার অনুরোধ জানিয়েছেন বলে মামা আমিনুল জানান।

মরদেহ স্বদেশে প্রেরণ করা হলে গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলার চাটখিলে দাফন করা হবে বলে জানানো হয়েছে পরিবার থেকে।

মিজান ভূঁইয়া প্রায় ১৫ বছর ধরে আটলান্টায় বাস করছে ভাই বোনদের নিয়ে। মরদেহ এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সময়ে ডিকাব কাউন্টি কর্তৃপক্ষের হেফাজতে রয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার দিন শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে ফেরত দেয়া হতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এদিকে আটলান্টায় গত কয়েক মাসের ব্যবধানে দুর্বৃত্তের গুলিতে তিন বাংলাদেশির মৃত্যুবরণের ঘটনার পর নতুন বছরের শুরুতে আরও একজন তরুণের এই আকস্মিক মৃত্যুর খবরে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে আসে। ডোরাভিলস্থ আত্তাকাওয়া মসজিদে আগামী শুক্রবার জুম্মা নামাজের পর মরদেহের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে বলে নিকটস্থানীয় বন্ধু বিপুল ভূঁইয়া জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

*