আটলান্টায় বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের পিঠা উৎসব ১৪ জানুয়ারি

0
55

জর্জিয়া বাংলা ডেস্কঃ শীতকাল এলেই গ্রাম-বাংলার ঘরে ঘরে নতুন ফসল তুলে নেয়ার পাশাপাশি পিঠা-পুলির আয়োজন আবাহমান কালের বংশ-পরাম্পরার একটি অন্যতম পার্বণ। এই পিঠার আস্বাদ গ্রাম ছাড়িয়ে শহরের মানুষের মধ্যেও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে ব্যাপক সমাদৃত। বাঙালির প্রাণের পিঠার আয়োজন নিয়ে নানা বৈচিত্রের নানা উৎসব এখন স্বদেশের সীমানা ছাড়িয়ে প্রবাসেও। আর যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় প্রধান শহর আটলান্টাতেও এর ব্যতিক্রম নেই। আগামী ১৪ জানুয়ারি রোববার বার্কমার হাই স্কুল মিলনায়তনে এই প্রাণোচ্ছল পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন অব জর্জিয়ার উদযোগে।

বিকেল চারটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত সময়কালে আয়োজিত এই পিঠা উৎসবে প্রবাসের নারী-পুরুষ শিশু-কিশোর প্রতিবারের মতো এবারও শেকড় সন্ধানী সাংস্কৃতিক গৌরব-গাঁথাকে লালন করতে একটি মিনি বাংলাদেশ রচনা করতে যাচ্ছে। বাঙালির প্রাণের এই সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে নতুন প্রজন্মের মাঝে সম্পৃক্ত করে তুলতে জর্জিয়ার সকল বাংলাদেশি ও বাংলা ভাষাভাষীর অভিবাসী নাগরিককে অংশগ্রহণের সাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ডাঃ মুহাম্মদ আলী মানিক ও সাধারণ সম্পাদক অসীম সাহা।

প্রতিবারের মতো এবারও বাহারী বৈচিত্র ও স্বাদের পিঠা তৈরি করে প্রবাসের পিঠা প্রেমী ললনারা উৎসবের ভেনুস্থলে সজ্জিত করবেন। পিঠার আয়োজন ছাড়াও থাকবে বাঙালির মজাদার নানা খাবার দাবার, নারু-মুরকী, ঝাল-মুড়ি, গরম চাসহ মেলার বিভিন্ন স্টলের পরিবেশনায় শাড়ি, পাঞ্জাবী, সালোয়ার কামিজ, চুড়ি, গহনা্ ও স্বদেশের নানা পণ্য সামগ্রীর সমাহার।

এছাড়া উৎসবের প্রধান আকর্ষণ হিসেবে মঞ্চ কাঁপাতে থাকছে উত্তর আমেরিকার সারা জাগানো লোকগীতি ব্যান্ড ‘মাদলে’র মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা। আরও থাকছে নাচ, গান, আবৃত্তিসহ কৌতুক আর প্রাণখোলা আড্ডা।

অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে কোন দর্শনী মুল্য নেই বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন। এছাড়া পরদিন সোমবার  যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় ছুটির দিন হওয়াতে ছেলেমেয়েদের স্কুলে যাওয়ার কোন তাগিদ নেই বলে প্রানভরে স্বস্তির আনন্দে পুরো অনুষ্ঠানটি উপভোগ করা যাবে বলে মন্তব্য করেছেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি ডাঃ মানিক।

অনুষ্ঠানের বিভিন্ন সহযোগিতায় থাকবেন সাকিরা আলী বাচ্চি, খন্দকার আব্দুল হক, দেবযানী সাহা, অভিষেক শ্যাম, শফিকুল হামিদ কামাল, অজয় রায়, মোহাম্মদ কামরুজ্জামান প্রমুখ সংগঠক।

 

 

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

*