আটলান্টায় একুশের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনের আয়োজন পৃথক দুই ভেন্যুতে

আটলান্টায় গত বছরের একুশ উদযাপনের ছবি

জর্জিয়া বাংলা প্রতিবেদনঃ এবছর আটলান্টায় মহান একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণের আয়োজনটি পৃথক দুইটি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

চলতি সপ্তাহের প্রারম্ভে “আটলান্টার সমগ্র বাঙালির সমবেত একুশে উদযাপন” নামে বার্কমার হাই স্কুল মিলয়ায়তনে বেশ কয়েকটি সংগঠনের অংশগ্রহণে একুশের প্রথম প্রহরে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণের আয়োজনের ঘোষণা দিয়ে প্রথম একটি আয়োজক গোষ্ঠীর পোস্টার সামজিক মিডিয়াসহ বিভিন্ন মাধ্যমগুলিতে প্রচারিত হয়।

সমবেত একুশ উদযাপনের পোস্টার

২০ ফেব্রুয়ারি রাত নয়টা থেকে অনুষ্ঠিতব্য ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদনের ঐ আয়োজনে এপর্যন্ত সেবা লাইব্রেরী, আটলান্টা কালচারাল সোসাইটি, বাংলাদেশি আমেরিকান এ্যাসোসিয়েশন অব জর্জিয়া, ডিসট্রেসড চিলড্রেন ইন্টারন্যাশনাল, আটলান্টা শাখা, বাংলাদেশ স্পোর্টস ফেডারেশন অব জর্জিয়া, আটলান্টা সিনিয়র ওয়েলফেয়ার সেন্টার ও বাংলাধারার অংশগ্রহণের কথা রয়েছে। এই আয়োজনে কবিতা, আলোচনাসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হবে রাত নয়টায় এবং বারোটা এক মিনিট থেকে শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হবে। অবশ্য বাংলাধারার সমন্বয়ক মাহবুব ভূঁইয়া জানিয়েছেন, যদি জর্জিয়া সমিতিও আয়োজন করে, তবে সেখানেও তারা অংশ নেবেন।

আয়োজক গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে সেবা লাইব্রেরীর পরিচালক হারুন রশীদ বলেন, “আমরা সর্বজনীনভাবে মহান শহীদ দিবসের এই আয়োজনটিকে সফল করে তোলার উদযোগ গ্রহন করেছি। এখানে নির্ধারিত কোন নেতা বা আহবায়ক নেই, আমরা সবাই মিলেই একুশকে উদযাপন করতে যাচ্ছি। তাই সকল সংগঠনকে সম্মিলিতভাবে এই আয়োজনে অংশগ্রহণের সাদর আহবান জানাই। একারনে এখনও যেসব সংগঠন তাদের অংশগ্রহণের আগ্রহ জানিয়ে এগিয়ে আসছে, সেগুলোর নাম সংযোজন করছি আমাদের পোস্টারে”।

হারুন আরও বলেন, “জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির মাধ্যমে এই আয়োজনটি সম্পন্ন হওয়ার কথা থাকলেও দুই বছরেরও অধিক সময় আগে কার্যকরী কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এরপরও তারা এবার আয়োজন করছে কিনা নিশ্চিত জানা যাচ্ছিলোনা। ফলে আমরা প্রস্তুতি গ্রহণ শুরু করি এবং এই আয়োজনে সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেনকে কয়েকদিন আগে আমি ব্যক্তিগতভাবে অনুরোধ জানিয়েছি যাতে এই সর্বজনীন আয়োজনের সাথে তিনিও যোগদান করেন”।

অন্যদিকে গত শুক্রবার জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আহমাদুর রহমান স্বাক্ষরিত অপর এক পোস্টারে এবছরের একুশের প্রহরে পুস্পস্তবক অর্পণসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজনের ঘোষনা প্রচার করা হয়েছে।

জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির একুশ উদযাপনের পোস্টার

এই আয়োজনটি নরক্রসের জিমি কার্টার বুলোবার্ডস্থ জেসি ইভেন্ট হলে অনুষ্ঠিত হবে এবং রাত আটটা থেকে শুরু হবে কবিতা, আলোচনাসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এই আয়োজনে বাংলাদেশি সকল রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয়, আঞ্চলিক সংগঠনসহ দলমত নির্বিশেষে সকলকে অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

স্মরণ করা যেতে পারে, ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির মেয়াদকাল শেষ হয়ে যাওয়ার পর কমিটির স্বাভাবিক কর্মকাণ্ড নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়লেও মেয়াদ উত্তীর্ণ এই কমিটির উদ্যোগেই ২০১৬ সালে মহান একুশের আয়োজন করা হয়েছিলো এবং সেবছর কয়েকটি সংগঠন মিলে সর্বজনীন উদযোগে আরও একটি পৃথক একুশ উদযাপনের আয়োজন করে। এরপর গতবছর সর্বজনীন আয়োজনের নামে পৃথক কোন উদযোগ না থাকায় জর্জিয়া বাংলাদেশ সমিতির মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির আয়োজনে সর্বজনীনভাবে ঐক্যবদ্ধ আয়োজনে একুশ উদযাপিত হয়েছে। এবছর ২০১৮ সালে জর্জিয়ার বাংলাদেশিরা আবারও দুইটি পৃথক ভেন্যুতে একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যাচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

*