আটলান্টায় সিনিয়র আবাসন প্রকল্পঃ একটি সময়োপযোগী উদযোগ

জর্জিয়া বাংলা প্রতিবেদনঃ যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় প্রধান শহর জর্জিয়া রাজ্যের আটলান্টায় বয়স্ক প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্যে আমেরিকান সিনিয়র হাউজিং এপার্টমেন্ট নামের একটি আবাসন প্রকল্প বাস্তবায়নে উদযোগী হয়েছেন সমাজ সংগঠক ও সিনিয়র নাগরিক গিয়াস উদ্দিন ভূঁইয়া।

সম্প্রতি আটলান্টার বিউফোর্ড হাই ওয়েস্থ নবপ্রতিষ্ঠিত মনসুন মাসালা রেস্টুরেন্টে আয়োজিত এক এক সংবাদ সম্মেলনে গিয়াস উদ্দিন ভূঁইয়া এই আবাসন প্রতিষ্ঠার উদযোগের কথা ঘোষণা করেন।

তিনি বিভিন্ন মিডিয়ার সাথে সম্পৃক্ত সাংবাদিক ও সুধীজনদের উদ্দেশে আটলান্টায় বয়স্ক প্রবাসী বাংলাদেশিদের একে অপরের সাথে সম্প্রীতি ও সৌহার্দময় পরিমণ্ডল তৈরির মাধ্যমে একটি নির্মল আনন্দ ও স্বস্তিপূর্ণ আবাসিক প্রকল্পের প্রয়োজনীয়তার কথা ব্যাখা করেন।

তিনি বলেন, এই প্রকপের অধীনে তিন তলা বিশিষ্ট আটটি এপার্টমেন্টে মোট চব্বিশটি কন্ডমিনিয়াম বাড়ি তৈরি হবে। চারদিক ঘিরে নির্মিত এই বাড়িগুলির মাঝখানে থাকবে সাধারণ লবি, কমিউনিটি মিলনায়তন, পরুষ ও মহিলাদের জন্যে পৃথক পৃথক নামাজের ঘর, পৃথক ব্যায়ামাগার, ইনডোর ওয়াকিং ট্রেইল, টেলিভিশন ও চিত্তবিনোদন কক্ষসহ বেশ কিছু সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা।

গিয়াস উদ্দিন আলোচনা কালে তাঁর নিজ উদ্যোগে প্রকল্পের জন্যে একটি প্রস্তাবিত নীল নকশা সকলের হাতে তুলে দেন।

গিয়াস উদ্দিন ভূঁইয়া আলাপচারিতায় আরও বলেন, এধরনের আবাসন প্রকল্প এখন আমেরিকার মূলধারার  সিনিয়র নাগরিকসহ অন্যান্য দেশে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হচ্ছে। কাজেই স্বদেশ থেকে যোজন যোজন দূরে এসে বয়স্ক প্রবাসীরা দেশান্তরী জীবনের শেষ সময়গুলো যাতে একই বয়সের অন্যান্য বাংলাদেশিদের সাথে নিজেদের সমমনা চিন্তা ভাবনাগুলি শেয়ার করতে পারেন, যাতে একই বয়সের সকলের সাথে খুব সহজেই বিনি সুতার মালার মতো একটি আত্মিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারেন, সেই সুন্দর একটি পরিমণ্ডল গড়ে তুলতেই এই আবসান প্রকল্পটি দৈনন্দিন জীবন যাপনের নিশ্চিন্ত পরিতৃপ্তির এক অভাবনীয় স্বস্তি এনে দিতে সক্ষম হবে।

তিনি এই প্রকল্পে আগ্রহীদেরকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। তিনি বলেন প্রস্তাবিত আবাসিক প্রকল্পের নাগিরকদের নিয়েই এপার্টমেন্টটির সুষ্ঠু পরিচালনায় একটি ব্যবস্থাপনা বা পরিচালনা পরিষদ গঠিত হতে পারে। ফলে তাদের নিজস্ব স্বার্থ সংশ্লিষ্ট যে কোন চাহিদা পূরণে বয়স্ক নাগরিকগন একটি অভিন্ন পরিবেশের বৈচিত্র্যময় জীবন ব্যবস্থা গড়ে তুলতে সক্ষম হবেন।

গিয়াস উদ্দিন আগ্রহীদেরকে তাঁর 678 471 6143 অথবা 470 375 8384 নম্বরের টেলিফোনে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, আগ্রহীরা এগিয়ে এলেই সকলের পরামর্শ ও সহযোগিতায় এই প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ শুরু করা সম্ভব।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জর্জিয়া বাংলা ডট কমের সম্পাদক রুমী কবির, মানচিত্র নিউজ ডট কমের সম্পাদক এ এইচ রাসেল, ঠিকানার জর্জিয়া প্রতিনিধি শামসুল আলম, মুজিবসেনা ডট কমের সম্পাদক মোহাম্মদ আলী হোসেন, তরুণ সংগঠক এস এম জাহিদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বিনিময়ে মিলিত হন কমিউনিটি সংগঠক ও রম্য লেখক আবু লিয়াকত হুসেন ও ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জাতীয় কমিটির সদস্য শেখ রহমান চন্দন।

Print Friendly